৫ লক্ষ টাকা চাঁদা দাবি, কারাগারে বিএনপি নেতা

বরগুনার আমতলী উপজেলা বিএনপি সাবেক সহ-সভাপতি মেসবাহ উদ্দিন মো. ফয়সাল তালুকদারকে চাঁদাবাজি মামলায় জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে। বরগুনা দ্রত বিচার আদালতের বিচারক মো. নাহিদ হোসেন মঙ্গলবার (২৪ জানুয়ারি) দুপুরে তাকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দিয়েছেন।

জানাগেছে, আমতলী উপজেলা বিএনপির সাবেক সহ-সভাপতি মো. মেসবাহ উদ্দিন ফয়সাল তালুকদারের বিরুদ্ধে গত বছর ৩ মার্চ বাবুল শংকর চন্দ্র শীল ৫ লক্ষ টাকা চাঁদা দাবির অভিযোগ এনে বরগুনা দ্রত বিচার আদালতে মামলা দায়ের করেন। আদালতের বিচারক ওই মামলাটি আমলে নিয়ে বরগুনা সিআইডি (গোয়েন্দা সংস্থা) পুলিশকে তদন্ত শেষে প্রতিবেদন দাখিলের নির্দেশ দেন।

সিআইডি তদন্ত কর্মকর্তা মো. আমিনুল ইসলাম বিশ্বাস গত বছর ২৮ নভেম্বর আদালতে তদন্ত প্রতিবেদন দাখিল করেন। ওই মামলায় ফয়সাল তালুকদার বরগুনা দ্রত বিচার আদালতে মঙ্গলবার হাজির হয়ে জামিন আবেদন করেন। আদালতের বিচারক মো. নাহিদ হোসেন তার জামিন আবেদন নামঞ্জুর করে জেল হাজতে পাঠানোর নির্দেশ দিয়েছেন।

মামলার বাদী বাবুল শংকর চন্দ্র শীল বলেন, মেসবাহ উদ্দিন ফয়সাল তালুকদার আমার পৈত্রিক ৬৬ শতাংশ জমি জোরপুর্বক ভোগদখল করে আসছে। এ জমি আমি চাষাবাদ করতে গেলে আমার কাছে পাঁচ লক্ষ টাকা চাঁদা দাবি করেছেন। আমি তার বিরুদ্ধে বরগুনা দ্রত বিচার আদালতে মামলা দায়ের করেছি।

বরগুনা দ্রত বিচার আদালতের বাদী পক্ষের আইনজীবি শম্পা রানী দেবনাথ বলেন, চাঁদাবাজির মামলায় আদালতের বিচারক মামলার আসামি মেসবাহ উদ্দিন ফয়সাল তালুকদারের জামিন আবেদন নামঞ্জুর করে কারাগারে পাঠানো নির্দেশ দিয়েছেন।

কেএইচ

Explore More Districts