নাক ভাঙার বদলা নিতে পারবে লুইস এনরিকে?

Share on facebook
Share on twitter
Share on email
Share on whatsapp

১৯৯৪ সালে যুক্তরাষ্ট্র বিশ্বকাপের কোয়ার্টার ফাইনালে মুখোমুখি হয় স্পেন আর ইতালি। ওই ম্যাচে রবার্তো বাজ্জিওর ইতালির বিপক্ষে ২-১ গোলে হেরে গিয়েছিল স্পেন। শুধু হারের কারণেই নয়, ওই ম্যাচটি বর্তমান স্পেন কোচ লুইস এনরিকে মনে রেখেছেন রক্তাক্ত হয়ে রক্তাক্ত হয়েছিলেন নাক ভাঙার কারণে। ইতালির ফুটবলার মাউরো তাসোত্তির সঙ্গে সেদিন মাঠে ভয়াবহ সংঘর্ষ হয়েছিল আজকের স্পেন কোচের।

১৯৯৪ বিশ্বকাপের সেই ম্যাচ এখনো ভুলতে পারেনি এনরিকে। সেই দিনের কথা আজও মনে পড়ে তার। ইতালির বিরুদ্ধে ইউরোর ২০২০ সেমিফাইনালে নামার আগে সেই দিনের ঘটনার কথা জানালেন এই স্প্যানিশ কোচ।

লুইস এনরিকে বলেন, ওই ঘটনাটা অতীতের অংশ। সেটি ফুটবল ইতিহাসেরও অংশ। আমি আর তাসোত্তি দুজনই মনে করি, ওটা ছিল একটা দুর্ঘটনা। ঘটনাটি না ঘটলেও পারত। তবে যখন খেলোয়াড় ছিলাম, তখনকার আরও অনেক স্মৃতি বয়ে নিয়ে বেড়াচ্ছি। সময়টা দুর্দান্ত ছিল। সেই ম্যাচটাও ছিল দুর্দান্ত। দুর্ভাগ্য যে স্পেন সে ম্যাচটি জিততে পারেনি। এবারের ইউরোতেও আমরা আরও একটি দুর্দান্ত ম্যাচে ইতালির মুখোমুখি হতে যাচ্ছি।

আজকের ম্যাচে অবশ্য দারুণ আত্মবিশ্বাসী হয়ে মাঠে নামবে ইতালি। ৩২ ম্যাচ ধরে অপরাজিত তারা। ২০১৮ সালের সেপ্টেম্বর থেকে রবার্তো মানচিনির শিষ্যরা হারতে ভুলে গেছে। এবারের ইউরোয় এখন পর্যন্ত দুটি নকআউট ম্যাচসহ ৫ ম্যাচে দাপটের সঙ্গেই জিতেছে ইতালি।

অন্যদিকে, স্পেনের অবস্থাটা একটু আলাদা। এবারের ইউরোয় খেলা ৫ ম্যাচের মধ্যে মাত্র একটিতে নির্ধারিত ৯০ মিনিটের মধ্যে জিতেছে স্পেন। দ্বিতীয় পর্বে ক্রোয়েশিয়ার বিপক্ষে অতিরিক্ত সময়ে গড়ানো ম্যাচ জিতেছে তীব্র লড়াইয়ের পর ৫-৩ গোলে। কোয়ার্টার ফাইনালে সুইজারল্যান্ডের বাধা পেরোতে টাইব্রেকারের আশ্রয় নিতে হয়েছে স্পেনকে।

এখন দেখার বিষয় লুইস এনরিকে বাহিনী আজকের ম্যাচে আজ্জুরিদের কাছ থেকে কোচের নাক ভাঙার নিতে পারে কিনা।

Explore More Districts