নবীগঞ্জে লকডাউনে জমে উটেছে পশুর হাট!

source_logo
Share on facebook
Share on twitter
Share on email
Share on whatsapp

দেশে করোনার প্রাদুর্ভাব বৃদ্ধি পাওয়ায় সরকারের নির্দেশিত  কঠোর লকডাউনের মাঝেও জমে উঠেছে হবিগঞ্জের নবীগঞ্জ উপজেলার  সালামতপুরস্থ পৌর পশুর হাট। সেখানে মানা হচ্ছে না স্বাস্থ্য বিধি। ক্রেতা-বিক্রেতারা মাস্ক বিহীন অবস্থায় অবাধে পশু কেনাবেচা করছেন। এতে করোনা সংক্রামনের ঝুঁকি রয়েছে। যদিও ইজারাদার শহরে মাইকিং করে স্বাস্থ্য বিধি মেনে পশুর হাট বসার ঘোষণা দিলেও বাস্তবে এর কোন মিল পাওয়া যায়নি।

মঙ্গলবার ( ৬ই জুলাই) সকাল থেকেই নবীগঞ্জ শহরতলীর সালামতপুর এলাকায় বসে পৌর পশুর হাট। সকাল থেকেই হাজার হাজার মানুষের উপচে পড়া ভীড়।

সারাদেশের ন্যায় লকডাউন বাস্তবায়নে উপজেলা প্রশাসনের পাশাপাশি সেনাবাহিনী, পুলিশ বাহিনীর সদস্যরা নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছেন। স্বাস্থ্য বিধি অমান্যকারীদের বিরুদ্ধে নেয়া হচ্ছে শাস্তি মুলক ব্যবস্থা ও আর্থিক জরিমানা।

প্রতিদিনই উপজেলার বিভিন্ন হাট বাজারে অভিযান অব্যাহত রয়েছে। এ ক্ষেত্রে কঠোর অবস্থানে প্রশাসন। কঠোর এই লকডাউনের মাঝে খোদ নবীগঞ্জ পৌর পশুর হাটে গরুর বাজার বসানোকে কেন্দ্র করে সাধারণ মানুষসহ পার্শ্ববর্তী সালামতপুর গ্রামবাসীর মাঝে করোনা সংক্রামনের আতংকে রয়েছেন। কয়েক হাজার ক্রেতা-বিক্রেতার উপস্থিতি ঘটেছে উক্ত বাজারে। এদের বেশীরভাগের মুখে মাস্ক নেই। মানা হচ্ছে না স্বাস্থ্য বিধি। আইন প্রয়োগকারী সংস্থার নেই কোন ভুমিকা। নীরব রয়েছেন পৌর কর্তৃপক্ষ। বিশেষজ্ঞরা জানান, যেখানে স্বাস্থ্য বিধি না মেনে লোক সমাগম বেশী, সেখানেই করোনা সংক্রামন বৃদ্ধির ঝুঁকি থাকে। এছাড়া প্রতিদিনই নবীগঞ্জে ৪/৫ জন করোনা পজেটিভ রোগী সনাক্ত হচ্ছে।

মঙ্গলবার ১৪ জনের নমুনা পরীক্ষা করলে ৬ জনের করোনা পজেটিভ আসে। ইতিমধ্যে গত এক সপ্তাহে ২৯ জন করোনা রোগী সনাক্ত হয়েছে। এদের মধ্যে ৭ জন হাসপাতালে ও বাকীরা বাড়িতে আইনোলেশনে রয়েছেন।

Explore More Districts